echo ' অবশেষে শেষ হল শান্তাকুমারন শ্রীসন্থের সাত বছরের নির্বাসন। - The Bengal Express - Bengali News Portal / Bangla khobor / Kolkata 24X7 / Bangla Live / Bengal 24

Header Ads

অবশেষে শেষ হল শান্তাকুমারন শ্রীসন্থের সাত বছরের নির্বাসন।


বেঙ্গল ডেস্কঃ
অবশেষে শেষ হল শান্তাকুমারন শ্রীসন্থের সাত বছরের নির্বাসন। এর আগে IPL-এ স্পট ফিক্সিং করে, ২০১৩ সালে ক্রিকেট থেকে নির্বাসনের মুখে পড়েছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটার শ্রীসন্থ। রবিবার শেষ হল তারই মেয়াদ। ফলে বাইশ গজে ফিরতে আর কোনও বাধা রইল না তাঁর।দেশের প্রথম সারির সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে নির্বাসন মুক্ত শ্রীসন্থ জানিয়েছেন, 'আমি ফের স্বাধীন হয়েছি। ক্রিকেট খেলার স্বাধীনতা ফিরে পেয়েছি। এটা আমার জন্য বিরাট বড় মুক্তি। অন্য কেউ আমার অনুভূতিটা বুঝতে পারবে বলে মনে হয় না।' 
তিনি আরও বলেন 'দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর আমি ফের ক্রিকেট খেলতে পারব কিন্তু দেশের মাটিতে এই মুহূর্তে ক্রিকেটে ফেরার পরিস্থিতি নেই। কোচিতে একটি স্থানীয় টুর্নামেন্ট আয়োজন করে আমি ক্রিকেটে ফেরার পরিকল্পনা নিয়েছিলাম। তবে সেই টুর্নামেন্ট আয়োজন ঘিরেও ঝুঁকি থেকে যাচ্ছে। কেরলে করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়েই চলেছে।' প্রসঙ্গত ২০১৩ সালে স্পট ফিক্সিংয়ের অভিযোগে রাজস্থান রয়্যালস দলে শ্রীসন্থ ও তাঁর দুই সতীর্থ অজিত চান্ডিলিয়া এবং অঙ্কিত চহ্বনকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। এই ঘটনার জেরে শ্রীসন্থকে আজীবন ক্রিকেট থেকে নির্বাসন করেছিল ভারতীয় বোর্ডে। এরপর এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে শ্রীসন্থে আইনি লড়াই শুরু করেন। 
২০১৫ সালে দিল্লি আদালত এরপর তাঁকে 'নির্দোষ' ঘোষণা করে। কেরালা হাইকোর্ট এরপর ২০১৮-তে বিসিসিআইকে আজীবন নির্বাসনের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করতে নির্দেশ দেয়। পরের বছর একই মামলায় সুপ্রিম কোর্ট শ্রীসন্থকে 'দোষী' চিহ্নিত করলেও ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে শাস্তি কমানোর জন্য নির্দেশ ঘোষণা করে। সুপ্রিম নির্দেশেই শ্রীসন্থের শাস্তির মেয়াদ কমে সাত বছরে নেমে আসে। গত কাল ১৩ সেপ্টেম্বর সেই মেয়াদ কাল শেষ হয়েছে তাঁর।
Loading...

No comments

Theme images by centauria. Powered by Blogger.